সর্বশেষ সংবাদ :

সৌদিতে গাড়িচাপায় বাংলাদেশি নিহত

পরিবারকে সময় দিতে সর্বশেষ গত বছরের জানুয়ারিতে দেশে ফিরেছিলেন জহিরুল হক সেলিম (৪০)। পরে জীবিকার তাগিদে পুনরায় নিজের কর্মস্থলে ফিরে যান তিনি। সব কিছু ঠিক থাকলে কয়েক বছর পর আবার দেশে আসতেন সেলিম। কিন্তু তার এ আশা আর পূরণ হলো না। কর্মস্থলে যাওয়ার পথে গাড়ি চাপায় স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার বিকেল ৪টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত জহিরুল হক সেলিম নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার কাদরা ইউনিয়নে জামালপুর গ্রামের ফজল হাজী বাড়ীর হাজী আব্দুর রশিদের ছেলে। তিন ভাই ও তিন বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। তার দুটি সন্তান রয়েছে।

নিহতের ছোট ভাই ছায়দুল হক ফরাদ জানান, জীবিকার সন্ধানে ২০০৪ সালে সৌদি আরবের দাম্মামে যান সেলিম। পরে সেখানে একটি কোম্পানিতে কাজ করতেন তিনি। প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার সকালে কাজে যোগদানের উদ্দেশ্যে দাম্মামে তার বাসায় বের হন সেলিম। পথে গাড়ি চাপায় গুরুতর আহত হন তিনি। ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পুলিশ তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে বিকেল ৪টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহতের ছোট ভাই আরও জানান, বর্তমানে তার ভাইয়ের লাশ সে দেশের পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। লাশ দেশে আনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে সরকারের কাছে সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি।

বিডি-প্রতিদিন

log

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

shared on wplocker.com