সর্বশেষ সংবাদ :

জাহিয়ার কান্নায় কাঁদলেন প্রবাসীরাও

মালয়েশিয়া :jahia আরাফাত রহমান কোকোর মরদেহ গত কাল রবিবার মালয়েশিয়ার জাতীয় মসজিদ চত্তরে নিয়ে আসা হলে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। তাঁর ছোট মেয়ে জাহিয়া রহমানের বুকফাটা কান্না উপস্থিত সকলকেই আবেগতাড়িত করে। এ সময় অনেকেই জাহিয়ার সাথে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। কোনো কিছুতেই জাহিয়ার কান্না থামানো যাচ্ছিলো না।
জহিয়া তাঁর বাবার কফিনে ধরে হাউমাউ করে কান্না করে। তাদের কান্নায় নিগারার আশ পাশ ভারি হয়ে উঠে। ছোট্ট মেয়ের কান্না দেখে জড়ো হওয়া প্রবাসীরাও কান্না থামাতে পারেননি। মেয়ের কান্না থামাতে এগিয়ে আসেন মোসাদ্দেক হোসেন ফালু। বড় মেয়ে জাফিয়া রহমানও মসজিদ নিগারায় এসেছিলেন।

আগামী কাল মঙ্গলবার মালয়েশিয়া সময় সকাল সাড়ে ৯টায় মালয়েশিয়ান বিমান এবং বাংলাদেশ ১১টা ৪০ মিনিটের সময় তা দেশে পৌছবে বলে মালয়েশিয়া বিএনপির সদস্য সচিব মো: মোশাররাফ হোসেন মালয়েশিয়া মহানগর বিএনপির আহবায়ক ওয়ালীউল্লাহ জাহিদ এ প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।

Comments are closed.

shared on wplocker.com